ফিরে দেখা ২০১০ : বছরজুড়ে সামহোয়্যারইন ব্লগে যা কিছু আলোচিত-সমালোচিত...

২০০৫ সালের ১৫ ডিসেম্বর যাত্রা শুরু করা সামহোয়্যার ইন ব্লগ আরো একটি ঘটনাবহুল বছর পার করল। বিশ্বের বৃহত্তম এই বাংলা ব্লগ কমিউনিটির আলোচিত-সমালোচিত উল্লেখযোগ্য সব ঘটনার সারাংশ নিয়ে এই আয়োজন—

ফ্যাক্টস ফাইল : সামহোয়্যারইন ব্লগ ২০১০
(জানুয়ারি ২০১০ থেকে ডিসেম্বর ২০১০ পর্যন্ত)
■ রেজিস্টার্ড ব্লগারের সংখ্যা ৬৫ হাজার।
■ চলতি বছরে সামহোয়্যারইন ব্লগ ভিজিট হয়েছে ৪৮ লাখ ৪৭ হাজার ১৯৭ বার।
■ মোট ইউনিক ভিজিটর ছিল ১১ লাখ ১১ হাজার ৪৬০ জন।
■ মোট পেইজভিউ হয়েছে ৪ কোটি ৮৮ লাখ ৯৫ হাজার ৭২৪টি।
■ সর্বাধিক ব্লগারের উপস্থিতি ছিল ১১ ডিসেম্বর ২০১০ (ওয়েব ও মোবাইল থেকে ২২ হাজার ৮৩১ ভিজিটর)
■ সামহোয়্যারে একজন ভিজিটর গড় সময় কাটান ২৭.৫ মিনিট।
■ ৮১ ভাগ ভিজিটর ব্লগে দিনে দুবার কিংবা তারও বেশিবার আসেন।
■ মোট ১৯২টি দেশ থেকে ব্লগার ও ভিজিটররা সামহোয়্যারে এসেছেন।
■ গত আগস্ট থেকে শুধুমাত্র সামহোয়্যারইনের মোবাইল সাইট ভিজিট হয়েছে দুই লাখ ২৯ হাজার ৭৫৯ বার।
■ মোবাইল থেকে পেইজভিউ হয়েছে ১০ লাখ ৯৮ হাজার ২৪৮টি।
■ মোবাইল সাইটে একজন ভিজিটর গড় সময় কাটিয়েছেন ৭ মিনিট ৪০ সেকেন্ড।
■ ব্লগার ও ভিজিটরের সংখ্যা প্রতি বছরই আগের বছরের চেয়ে দ্বিগুণ হারে বাড়ছে, চলতি ২০১০ সালেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।
■ অ্যালেক্সা রেংকিংয়ে অবস্থান সারা বছরই ছিল এগারোতে
■ গুগল পেইজরেংকে অবস্থান : ৫/১০।
■ গুগল অ্যানালাইটিকসে সামহোয়্যারইন ব্লগের ভেতরবাড়ি এবং অন্দরমহল

ব্লগ ট্রেন্ড ২০১০
উল্লেখযোগ্য অনেক ঘটনার সংবাদ অনলাইন মিডিয়া তো বটেই, এমনকি টেলিভিশনেরও আগে সামহোয়্যারইনে প্রকাশ পেয়েছে ব্লগারদের দক্ষতায়। এ বছর ব্লগারদের মতামতকে গুরুত্ব সহকারে প্রকাশ করেছে প্রিন্ট ও অনলাইন গণমাধ্যমগুলোর অনেকে। সমকালসহ বেশ কয়েকটি পত্রিকা এবং অনলাইন সংবাদমাধ্যমে ব্লগের লেখা পুনপ্রকাশ করতে দেখা গেছে। অনেক ব্লগার মূলধারার পত্রপত্রিকায় লেখক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন। সামহোয়্যারইন ব্লগে বরাবরের মতোই দুপুর আর সন্ধ্যারাতে ব্লগারদের উপস্থিতির হার ছিল বেশি। এই দু বেলায় গড়ে সাধারণভাবে ২৫০ থেকে ৩০০ রেজিস্টার্ড ব্লগারের উপস্থিতি দেখা গেছে। বছরজুড়ে অব্যাহত লোডশেডিংও উপস্থিতির ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

বছরজুড়ে আলোচিত-সমালোচিত
পাইরেসি ও কপিরাইট ইস্যুতে বিজয় এবং অভ্রের মধ্যকার লড়াই, শাহরুখ খানের বাংলাদেশ সফর, বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে কন্যার সঙ্গে মুহাম্মদ জাফর ইকবালের নৃত্যচর্চা, রূপগঞ্জে জমি অধিগ্রহণ নিয়ে উত্তেজনা, মুসা ইব্রাহীমের এভারেস্ট বিজয় নিয়ে বিতর্কের পাশাপাশি যথারীতি ছিল আস্তিক-নাস্তিক দ্বন্দ্ব এবং সেনাবাহিনী বিদ্বেষ। বছরজুড়েই ব্লগাররা সরব ছিলেন সরকারি কর্মকাণ্ড এবং মোবাইল কোম্পানির সমালোচনায়। ব্লগে আলোচিত অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে ছিল ক্রিকেট, ড. মুহাম্মদ ইউনুস, পার্বত্য চট্টগ্রাম, উইকিলিকসসহ আরো বেশকিছু। তবে এই সবকিছুকে ছাপিয়ে দীর্ঘদিন ব্লগে আলোচনার বিষয়বস্তু ছিল অভিনেত্রী প্রভা ও তার বাগদত্তা রাজিবের গোপন ভিডিওচিত্র। ধারণা করি, সামহোয়্যারইন ব্লগেই প্রথম ভিডিওচিত্র দুটির লিংক প্রকাশ পায়। এ ধরনের 'প্রিমিয়ার' ব্লগারদের একটি বড়ো অংশ সহজভাবে নেননি, তারা ঝাঁঝালো প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন, অনেকে রাজিবের শাস্তিও দাবি করেছেন। অবশ্য ভিডিওচিত্র নিয়ে ব্লগারদের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো।

মডারেশন বিতর্ক
■ মডারেশন—বরাবরের মতোই ছিল ব্লগের আলোচিত বিষয়। পক্ষে-বিপক্ষে তুমুল আলোচনা চলেছে বছর ধরে। এমনকি ডয়চে ভেলেতে সামহোয়্যারের পরিচালক জানার যে সাক্ষাৎকারটি প্রচারিত হয়, তার মূল বিষয়বস্তুও ছিল মডারেশন। গ্রুপিং, ট্যাগিং এবং অশ্রাব্য ভাষায় ব্লগারদের আক্রমণের ঘটনা মাঝে মাঝেই ঘটতে দেখা গেলেও অনেকের অভিযোগ ছিল মডারেটররা এসব বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে অনেক সময় শৈথিল্য দেখান।
■ 'সাপ্তাহিক' নামের একটি সাময়িকী সামহোয়্যারইন সম্পর্কে কিছু অভিযোগ উত্থাপন করে। তবে ব্লগারদের বেশিরভাগই ওই অভিযোগকে গড়পড়তা বলে প্রত্যাখ্যান করেছেন।

সত্যিকারের মোবাইল ভার্সন
অপেরা মিনির বিশেষ একটি ফিচার ব্যবহার করে মোবাইলে বাংলা সাইট ব্রাউজিং ব্যয়বহুল কিন্তু জনপ্রিয় হলেও ১৭ আগস্ট থেকে সামহোয়্যারইন ব্লগের সত্যিকারের মোবাইল ভার্সনের যাত্রা শুরু হয়। টেক্সট ও ইমেজ সম্বলিত এই ভার্সন তুলনামূলক দ্রুতগতির জন্য ব্লগারদের মাঝে প্রশংসিত হয়। গত চার মাসে ব্লগের মোবাইল সাইট ভিজিট হয়েছে ২ লাখ ২৯ হাজার ৭৫৯ বার। মোবাইল থেকে পেইজভিউ হয়েছে ১০ লাখ ৯৮ হাজার ২৪৮টি।

নতুন ফিচার
অক্টোবরে ব্লগে নতুন ফিচার যুক্ত হয়। এর মধ্যে রয়েছে পছন্দনীয় ব্লগ কিংবা ব্লগারের পোস্ট প্রথম পাতায় 'অনুসারিত' ট্যাবে দেখার সুবিধা। পছন্দসই ব্লগ অনুসরণ করার জন্যে একটি 'অনুসরণ করুন' বাটন প্রতি ব্লগ পাতায় সংযোজিত হয়। নতুন পোস্ট শেয়ারিং সুবিধাকে আরো উন্নততর করা হয়। এছাড়া সদ্য সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে ডয়চে ভেলের ফিড থেকে।

দূরের জানালা
■ বাংলাদেশের প্রথম এবং একমাত্র কোম্পানি হিসেবে সামহোয়্যার ইন নেট ২০১০ সালের রেড হেরিং এশিয়া টপ ১০০ টেক স্টার্টআপ হিসেবে নির্বাচিত হয় ১৬ নভেম্বর। ওইদিন চীনের সাংহাইয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে সনদ তুলে দেওয়া হয়।
গণমাধ্যমে : ইউটিউবডেইলি ইন্ডিপেন্ডেন্টপ্রথম আলোডেইলি স্টারকালের কন্ঠসমকালডয়চে ভেলে
■ গুগলের আমন্ত্রণে 'ইন্টারনেট অ্যাট লিবার্টি ২০১০' কনফারেন্সে যোগ দেন সামহোয়্যারইনের হেড অফ অ্যালায়েন্স সৈয়দা গুলশান ফেরদৌস জানা। ২০ থেকে ২২ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে সারা বিশ্ব থেকে ৪০০ জন সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকটিভিস্টকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।
■ ২১ থেকে ২৩ জুন জার্মানির বনে ডয়চে ভেলে আয়োজিত ‘গ্লোবাল মিডিয়া ফোরামে' অংশ নেয় সামহোয়্যারইন। প্রতিনিধিত্ব করেন সৈয়দা গুলশান ফেরদৌস জানা। সম্মেলনে ৯৫টি দেশ থেকে আসা প্রায় দেড় হাজার বিশেষজ্ঞ বিভিন্ন বিষয় আলোচনা করেন।
■ মে'তে চিলির সান্টিয়াগোতে অনুষ্ঠিত সিটিজেন মিডিয়া সামিটে যোগ দেন সামহোয়্যারইনের ব্লগার কৌশিক আহমেদ

মাইক্রোসফটের কর্মসূচি
বছরের মাঝামাঝিতে সামহোয়্যারইনের শিক্ষার্থী ব্লগারদের জন্য মাইক্রোসফটের পক্ষ থেকে একটি বিশেষ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এতে আবেদনসাপেক্ষে সামহোয়্যার ইন...ব্লগের রেজিস্টার্ড শিক্ষার্থী ব্লগারদের জন্য মাইক্রোসফট ভিজুয়াল স্টুডিও প্রফেশনাল, উইন্ডোজ সার্ভার, মাইক্রোসফট এক্সপ্রেশন স্টুডিওসহ আরো বেশকিছু পেশাদারি টুলের সর্বশেষ ও সম্পূর্ণ সংস্করণ বিনামূল্যে পাওয়ার সুযোগ রাখা হয়।

গুগল গুজব
এপ্রিলের শুরুতে একটি পোস্টের সূত্র ধরে গুগল সামহোয়্যারকে অধিগ্রহণ করছে—এমন এক গুজব ছড়িয়ে পড়ে বাংলাভাষী ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মাঝে।

প্রযুক্তিগত সমস্যা বছরজুড়েই
■ প্রায় বছরজুড়েই প্রযুক্তিগত সমস্যায় ভুগেছে ব্লগ। গতি আগের তুলনায় স্লথ হয়ে গেছে—এ অভিযোগ ছিল সারা বছরই। এছাড়া লগইন সমস্যা, পোস্ট উধাও হয়ে যাওয়া, পোস্ট সঙ্গে সঙ্গে প্রথম পাতায় না আসাসহ বিস্তর অভিযোগ ছিল ব্লগারদের পক্ষ থেকে।
■ বছরের মাঝামাঝিতে গ্রামীণফোনের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা আন্তর্জাতিক গেইটওয়ের রাউটিং সম্পর্কিত একটি কারণে সামহোয়্যারইনের সাইটে প্রবেশের ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব সমস্যার মুখোমুখি হন। ব্লগ কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে গ্রামীণফোনের সঙ্গে যোগাযোগ করার পর সমস্যার সমাধান হয়।
■ সার্ভার আপগ্রেডসহ নানা সমস্যার কারণে মাঝে মাঝেই সাময়িকভাবে বন্ধ ছিল ব্লগ। জুলাইয়ের শুরু থেকে ব্লগের হিট কাউন্টার দীর্ঘ সময়ের জন্য বন্ধ থাকে।
■ মে মাসের শেষদিকে নতুন একটি সার্ভারে সরিয়ে নেওয়া হয় সামহোয়্যারইনকে।

ব্লগ প্রতিযোগিতায় সামহোয়্যারইন
বছরের শুরুর দিকে ব্লগারদের জন্য আনন্দের খবর হয়ে এসেছিল ডয়চে ভেলে আন্তর্জাতিক ব্লগ পুরস্কার, যাকে বলা হয়ে থাকে বেস্ট অব ব্লগস বা ববস্। চার বছর আগে এই প্রতিযোগিতা শুরু হলেও এবারই প্রথম বাংলা ভাষা যুক্ত হল। সবমিলিয়ে ১১টি ভিন্ন ভিন্ন ভাষায় এই পুরস্কার দেওয়া হয়। ডয়চে ভেলে সেরা বাংলা ব্লগ প্রতিযোগিতার পার্টনার ছিল সামহোয়্যার ইন ব্লগ। প্রতিযোগিতাকে উৎসাহিত কিংবা আরও জনপ্রিয় করতে সামহোয়্যারইন ব্লগ ভূমিকা রাখলেও বিজয়ী নির্ধারণের ক্ষেত্রে সংস্থাটির কোন ধরনের হস্তক্ষেপের সুযোগ ছিল না। অন্যান্য ব্লগারদের মতো সামহোয়্যার ইন ব্লগে নিবন্ধিত ব্লগাররাও এই প্রতিযোগিতায় হাজির হয়েছিলেন ব্যক্তিগত ব্লগটি নিয়ে। আলী মাহমেদ শুভ সেরা বাংলা ব্লগ পুরস্কার জেতেন। তবে চূড়ান্ত তালিকায় সামহোয়্যারইনের ব্লগারদের আধিপত্য ছিল চোখে পড়ার মতো। প্রতিযোগিতায় ব্লগারদের ভোটে দ্বিতীয় ও তৃতীয় হন যথাক্রমে কৌশিক এবং ফিউশন ফাইভ। এছাড়া চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত তালিকায় আরো ছিলেন যথাক্রমে সামহোয়্যারইনের ব্লগার মাহবুব সুমন, নুশেরা, মনজুরুল হক, শওকত হোসেন মাসুম, পারভেজ ও বেলায়েত। ভিন্ন একটি ক্যাটাগরিতে চূড়ান্ত মনোনয়ন পান ব্লগার জ্বিনের বাদশা। প্রতিযোগিতার বাংলা অংশের অন্যতম জুরি ছিলেন সামহোয়্যারইনের সৈয়দা গুলশান ফেরদৌস জানা
সংযুক্তি : প্রতিযোগিতার ফলাফলপ্রথম আলোর খবরবিচারকমণ্ডলীডয়চে ভেলের অডিও সাক্ষাৎকার

যৌন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ব্লগাররা
ইভটিজিং নিয়ে চারদিকে যখন আলোচনা-সমালোচনার ঝড়, তা থেকে বিচ্ছিন্ন থাকেনি ব্লগাররাও। এমন এক অবস্থায় সামহোয়্যারইনের ব্লগারদের সক্রিয় তৎপরতায় গড়ে ওঠে ইভটিজিংবিরোধী সামাজিক আন্দোলন। ১ নভেম্বর প্রথম আলোর ফান ম্যাগাজিন রস+আলোতে ব্লগার ফিউশন ফাইভের করা ইভটিজিং বিরোধী রসমলাটকে পোস্টার হিসেবে প্রকাশ করার ব্যাপারে একমত হন ব্লগাররা। ব্লগার জীবনানন্দদাশের ছায়া, সবাক, রাতমজুর, আইরিন সুলতানা, পারভেজ আলম, রাজসোহান প্রমুখের উদ্যোগে আন্দোলনের নামকরণ হয়- 'সামহোয়্যারইন ব্লগার্স ইভটিজিং বিরোধী সামাজিক আন্দোলন'। ব্লগারদের পক্ষ থেকে এর আগে বিভিন্ন মানবিক উদ্যোগ নেওয়া হলেও এবারই প্রথম সামাজিক সংস্কারমূলক কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়। নভেম্বরের শুরু থেকে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে একাধিক পরামর্শ বৈঠকে মিলিত হন ব্লগাররা। পোস্টার প্রকাশনার ব্যয়ভার বহন করতে এগিয়ে আসে লন্ডনভিত্তিক অনলাইন সংবাদপত্র ইউকেবিডিনিউজ। সামহোয়্যারইনের অনেক ব্লগারও তাদের সাধ্যমতো অর্থসহায়তা দেন। ২৬ নভেম্বর যাত্রাবাড়ির দনিয়ায় এ.কে হাইস্কুলের সামনে দেয়ালে জনসচেতনতামূলক পোস্টার লাগানোর মাধ্যমে কর্মসূচি শুরু হয়। অচিরেই দেশজুড়ে ব্লগাররাই শুধু নয়, বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষও বিপুল উৎসাহে ইভটিজিংবিরোধী পোস্টারিং কর্মসূচিতে অংশ নেন।
ক্যাম্পেইন : ঢাকার উত্তরা-মিরপুরমালিবাগ, মৌচাক, ওয়্যারলেস, সিদ্ধেশ্বরীগাইবান্ধাময়মনসিংহবরিশালমুন্সিগঞ্জ- বিক্রমপুর ■ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম দফা, দ্বিতীয় দফা এবং তৃতীয় দফা কর্মসূচি ■ আইরিন সুলতানার ছবিব্লগপ্রতিক্রিয়া
গণমাধ্যমে : দৈনিক আমার দেশইউকেবিডি নিউজআমার সংবাদ

শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম
সামহোয়্যারইনের ব্লগারদের উদ্যোগে উত্তরবঙ্গে শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হয় সফলভাবে। প্রাথমিক পর্যায়ে লালমনিরহাট সদর, রাজাপুর এবং তিস্তার চরে প্রায় ৭০০ দুঃস্থ পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। ব্লগারদের আহ্বানে বিপুল সংখ্যক পুরনো শীতপোশাক এবং প্রায় ৮৫ হাজার টাকা জমা পড়ে। বছরের অন্যতম সফল উদ্যোগ ছিল এটি।
সংযুক্তি : আহ্বানসংগ্রহগোছানোবিতরণসাফল্য-ব্যর্থতা

মানবিক-শিক্ষামূলক উদ্যোগ
■ দুটো কিডনিই হারিয়ে মৃত্যুপথযাত্রী এক কৃষককন্যাকে বাঁচানোর জন্য বইমেলায় টাকা তোলা থেকে কনসার্ট, জনে জনে সাহায্য চাওয়া—কিছুই বাদ রাখেনি ব্লগাররা। তাদের ভালোবাসায় সেই আজমেরী এখন সুস্থতার পথে
■ ২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি পিলখানায় বিডিআর বিদ্রোহের সময় গুলিবিদ্ধ হওয়া নিরীহ কিশোর চা-বিক্রেতা আকতার যখন বিনা চিকিৎসায় নিশ্চিত মৃত্যুর পথে, ঠিক সেই সময় তার পাশে এগিয়ে আসেন ব্লগাররা। সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন অনেকেই। চলে চিকিৎসা । পরে পত্রিকার খবর দেখে চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে আসেন অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ব্যবসায়ী এটোম রহমান। নানা চেষ্টার পর আক্তার উড়ে যান অস্ট্রেলিয়ায়। সুস্থ হয়ে গত নভেম্বরে দেশে ফিরে আসে আক্তার।
■ ব্লগারদের উদ্যোগে ২০০৯ সালে শুরু হওয়া উপমা চিকিৎসা সহায়তা কার্যক্রমের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয় এ বছর।
■ ব্লগার নুরুন নেসা বেগমের একক প্রচেষ্টায় কুমিল্লার মনোহরগঞ্জের লাল চাঁদপুর হাই স্কুল এবং বরুড়া উপজেলার নলুয়া গনকখুলীতে অবস্থিত জামিয়া ইসলামিয়া আশরাফুল উলুমে প্রতিষ্ঠিত হয় দুটি কম্পিউটার ল্যাব

বিজয় দিবসের আয়োজন
সামহোয়্যারইনের ব্লগার ও ডেভেলপার টিমের উদ্যোগে গত দু বছর ধরে বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়ে আসছে। এবারও ১৬ ডিসেম্বর সকালে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা শাহবাগ-টিএসসি-শহীদ মিনার প্রদক্ষিণ করে। সঙ্গে ছিল অন্যান্য আয়োজনও। এই প্রথমবার নির্মিত হল একটি সুসম্পাদিত ভিডিওচিত্রও
সংযুক্তি : শোভাযাত্রাবিজয় দর্শনছবিব্লগ

চতুর্থ বছরে অপরবাস্তব
ব্লগারদের লেখা নিয়ে চলতি বছরও যথারীতি প্রকাশিত হয় 'অপরবাস্তব'। এবার ছিল এর চতুর্থতম সংকলন। ১৩ ফেব্রুয়ারি বাংলা একাডেমি বইমেলার নজরুল মঞ্চে ১২৮ পৃষ্ঠা ও ১৩০ টাকা মূল্যের বইটির মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এ বছর অপরবাস্তবের সম্পাদক ছিলেন লোকালটক, আবদুর রাজ্জাক শিপন ও কৌশিক আহমেদ।
সংযুক্তি : ঘোষণালেখা আহ্বানমোড়ক উন্মোচন ১মোড়ক উন্মোচন ২প্রকাশনা অনুষ্ঠানপ্রতিক্রিয়াআলোচনাসমালোচনাঅভিজ্ঞতাপ্রস্তাবনাঅনলাইন বিপণন
গণমাধ্যমে : অপরবাস্তব: সাহিত্যচর্চার নতুন ধরন - আহমাদ মোস্তফা কামালগ্লোবাল ভয়েসেস অনলাইন
ব্লগারদের বই : বেশকিছু ব্লগারের বই প্রকাশিত হয়েছে চলতি বছর। পুরো তালিকা পাওয়া যাবে এখানে

দ্বিতীয় বাংলা ব্লগ দিবস
ইন্টারনেটে বাংলা ভাষায় ব্লগ লেখার চর্চাকে আরও ব্যাপক আকারে পৃথিবীজুড়ে ছড়িয়ে দিতে ১৯ ডিসেম্বরকে বাংলা ব্লগ দিবস হিসেবে পালন করার উদ্যোগ নেওয়া হয় ২০০৯ সালে। এবারও বেশ উৎসাহ নিয়ে পালিত হয় দিবসটি। এ উপলক্ষে ঢাকায় সামহোয়্যারইন কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সমবেত হন ব্লগাররা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। গত বছরের মতো এবারও এবারও ডিসেম্বর মাসের শুরুতেই উদ্যোক্তা হিসেবে সামহোয়্যারইনের পক্ষ থেকে সবগুলো বাংলা ব্লগ কর্তৃপক্ষকে ইমেইল করে আমন্ত্রণ জানানো হয়, যাতে সবাই মিলে দিনটি সম্মিলিত উদযাপনের পরিকল্পনা করা যায়। না আসতে পারলেও এর মধ্যে অনেকগুলো ব্লগ থেকেই পূর্ণ সমর্থন ও শুভকামনা জানিয়ে মেইলের উত্তর দেওয়া হয়। ১৯ ডিসেম্বরের অনুষ্ঠানে উপস্থিতির জন্যে আমন্ত্রণপত্রও দেওয়া হয় সবাইকে আলাদা আলাদা করেই।
ছবিব্লগ : অন্যমনস্ক শরৎ ১অন্যমনস্ক শরৎ ২জিসান শা ইকরাম ১জিসান শা ইকরাম ২ক্যামেরাম্যানফেসবুক অ্যালবাম
গণমাধ্যমে : দৈনিক যুগান্তর ডয়চে ভেলেসংবাদ অস্ট্রেলিয়া
প্রতিক্রিয়া : আলোচনাসমালোচনা

লেখা প্রতিযোগিতা
বিজয় দিবস এবং ব্লগ দিবসকে সামনে রেখে ‘সামহোয়্যার ইন...' মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে লেখা আহ্বান করেছিল ব্লগারদের কাছ থেকে। সেখান থেকে ১০ জনকে সেরা লেখক হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। আর ১৯ ডিসেম্বর বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।

ব্লগাড্ডা
চলতি বছর ব্লগারদের আনুষ্ঠানিক আড্ডা খুব বেশি হয়নি। যদিও বছরের প্রথম দিনই পঞ্চাশেরও বেশি ব্লগারের অংশগ্রহণে জমজমাট একটি আড্ডা বসেছিল ছবিরহাটে। আরেকটি উল্লেখযোগ্য আড্ডা বসেছিল ১ অক্টোবর, শাহবাগ পাবলিক লাইব্রেরির সামনে।

ই-সংকলন
ব্লগারদের লেখা নিয়ে দুটি ই-বুক প্রকাশিত হয়েছে এই বছর। এর একটি ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ভালোবাসি এবং অন্যটি মা দিবস উপলক্ষে মমতাময়ী

বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে আয়োজন
বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষে জুনের শুরুতে ব্লগারদের কাছ থেকে ব্লগের ব্যানার আহ্বান করা হয়। ১১ জুন শুরু হওয়া বিশ্বকাপের পুরোটা সময় অনলাইন ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী ব্যানার মূল ব্লগে এবং রানারআপ ব্যানারগুলো পর্যায়ক্রমে রাখা হয় ওয়ার্ল্ড কাপ গ্রুপ ব্লগে। প্রিয় ফুটবল দলকে সমর্থন করার সুবিধা সম্বলিত একটি ফিচারও সেই সময় ব্লগে যোগ করা হয়।

লাইভ ব্লগিং
সিটিজেন মিডিয়া সামিট, চিলির সান্টিয়াগো থেকে
প্রথমবারের মত, সুন্দরবন থেকে
বাংলা ব্লগ দিবসে, গুলশান থেকে
সংস্কৃতি মঞ্চের সভা, দৃক গ্যালারি থেকে
এইডস দিবসের অনুষ্ঠান, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র থেকে

ব্লগ নিয়ে ব্লগারদের পোস্ট
ওয়েবে ছড়িয়ে থাকা বাংলা ব্লগের তালিকাসামহোয়্যারের বিবর্তনএ যাবতকালের সকল ব্লগারের তালিকাসামহোয়্যারইন সম্পর্কে কিছু মজার তথ্যসবচেয়ে জনপ্রিয় ব্লগার কে?সেরা কমেন্টকারী কে?চলতি বছরের শীর্ষ দশ নতুন ব্লগার২০১০ সালে ব্লগকাঁপানো সেরা দশব্লগারের রক্তের গ্রুপভুক্ত তথ্যব্লগারদের জন্মদিন ১ব্লগারদের জন্মদিন ২ব্লগারদের ফ্লিকারটুইটারে ব্লগাররাব্লগারদের নিজ নিজ জেলাব্লগাররা কাদের পোস্ট বেশি পড়ে?ব্লগের ইতিহাসে সর্বাধিক পঠিত পোস্টব্লগের সেরা ফান পোষ্ট কোনটি?ব্লগের টপ টেকি পোস্টবাংলা ব্লগোস্ফিয়ারে মুক্তচিন্তার গুরুত্বপূর্ণ লেখাব্লগের কবিতা : সাময়িক দৃষ্টিপাতব্লগীয় কল্পবিজ্ঞান গল্প তালিকাচট্টগ্রামের ব্লগার লিস্টইন্জিনিয়ারস:: সামহোয়্যার ইন ব্লগপর্যটন স্থানের ছবি ব্লগ সংকলননতুন ব্লগার হলে...

ফিরে দেখা ২০০৯ : বছরজুড়ে সামহোয়্যারইন ব্লগের উল্লেখযোগ্য ঘটনাসমূহ


প্রথম প্রকাশ

Tags: ,

About author

ফিউশন ফাইভ। ব্লগ লিখছেন পাঁচ বছরেরও বেশি সময় ধরে।